Bangladesh Read Count : 28

Category : Notes/work

Sub Category : N/A
what happened kuddus !!! ক্রাউন সিমেন্টের সেই ডায়লগ মনে পড়ে।সত্যিতো আমরা যাহারা প্রবাসে আছি অনেক গর্ব করি।যখন দেখি যেকোন পন্যে লিখা থাকে প্রডাক্ট অফ বাংলাদেশ।কিন্তুুক গর্বটা খর্ব হয়ে যায়।যখন মনে হয় দেশে যাবার সময় ইয়ারপোর্টের হয়রানির কথা কিংবা পাসপোর্ট করা থেকে বিদেশ আসা পর্যন্ত ঘুষের সদাই দেখে অথবা ইত্যাদি ইত্যাদি।প্রবাসীরা হার্ট অফ বাংলাদেশ।আমরা অনেক পরিবর্তন হয়েছি।পুর্বে যাহারা চঞ্চল ছিল এখন সবাই শান্ত-ভদ্র।তাহারা সব ভুলে কবুতরের মত শান্ত হয়েছে প্রবাসে। মনে পড়ে জাতীয় সঙ্গীতের কথা। সেই বাল্যকালে অনেকে কত যে গেয়েছেন!তবে কজনা আছে বলতে পারবে যে সত্যি "আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি"। কিংবা কাজ্বী নজরুলের "নম নম নম বাংলাদেশ মম" অনেক মনে পড়ে প্রবাসের মাটিতে। সত্যি কথা কি জানো যদি প্রত্যেক প্রবাসীর মত বাংলার মানুষ হতো তবে ডিজিটালিস বাংলা হত না! বাংলা হতো সোনার বাংলা। যেটা রবীন্দ্রনাথ-নজরুল সহ অনেকের সপ্ন।
বাংলার ছেলেরা দেখে সপ্ন
বাহির থেকে কেঁড়ে নিবে কে অন্ন?
বাংলা মা এখন চরকার উপর
ঘুষের উপর সবাই করছে ভর।
দিন-দুপুরে খুনা খুনি
রক্তাক্ত চোঁখের মনি।
প্রমোশনের নেশায়
সে মানুষ পিটায়।
রক্তাক্তরক্ত, পথ-ঘাট যুক্ত
কে করবে মুক্ত,কে সে বাংলার ভক্ত!!!!!!
সবাই স্বাভাবিক স্বাধীন হউক চিন্তা চেতনায়। এখনকার বিদেশে বাংলাদেশের হরেকরকমের জিনিসপত্রের সমারোহ দেখে সত্যিই পুলকিত আনন্দিত। এই সেই বাংলাদেশ আমাদের গত হওয়া মানুষগুলোর স্বপ্ন দেখার জন্য সম্ভব হয়েছে। জাগতিক প্রাণ হলে বুঝতে পারা যায় যে, এতো রক্তাক্ত প্রান্তর হতো কি ? ভু-রাজনৈতিক সংসৃষ্টকরণের ব্যাপারেও কখনো হয়ে যায়। বাংলা কত সমৃদ্ধি সেই প্রাচীন কাল থেকে পুরানো ইতিহাস থেকে জানা যায় যে, ব্রিটিশ, ইন্ডিয়া -পাকিস্তান যে যেভাবে পেরেছে যাহা কিছু পেয়েছে কুড়াইয়াছে আপন দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী করেছে। তবে কেনো এখনো পুরানো শকুনের হাতছানি? কতটুকু বা
'নির্মমতা কতদূর হলে জাতি হবে নির্লজ্জ'? 
গুরুচন্ডালী ভাষার ব্যবহার দেখে কেউ কি কিছু মনে করেছেন? বাংলা ভাষা ও বাঙালির আদি উৎস অনেক পুরানো। আর সেই পুরানো দিনের কথা অনেকেই ভুলে যাই।  'আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি' ? ব্রিটিশ বিরুদ্ধে বাঙালির অবদান ছিলো। আমরাই তো বিদ্রোহী রণক্লান্ত। পড়েছো কি জহির রায়হানের 'আরেক ফাল্গুন' এবং  হুমায়ুন আহমেদ এর জোছনা ও জননীর গল্প? গল্প তো অনেক হলো এবার কাজের ফাঁকে হাসি দেখে খুশি হই। কুলাউড়ায় লাতুর ট্রেন বন্ধ হবার অনেক ফায়দা হয়েছে। সেই কবে থেকে এই পথে কত হয়েছে পাচার। কেমন যেনো ধুয়াশা জমে থাকে পাচার শব্দের মধ্যে কখনো তা বেশি প্রচার হয় না। আবারো কি আমরা কুলাউড়া শাহবাজপুর শুরু করবো পাচার হতে। এ কেমন উপহার ইলিশ পাঠিয়ে অন্যদেশে? যেখানে দেশি লোক দেশজ ইলিশের স্বাদ পায় না। গোলা ভরা ধান, পুকুর ভরা মাছ কার জন্য? এ কেমন দুর্নীতিতে ভরপুর দুর্ভিক্ষের দিন এলো?  বাংলাদেশের পোশাক খাতে অনেক সম্মান আছে বিদেশের মাটিতে। হবেই তো বাংলায় যে সোনা ফলে। আরো কিছু বেশি ভালো হতো যদি বাণিজ্য 
বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আমদানির চেয়ে রপ্তানিতে বেশি শুল্কহার কম দিতেন হরেকরকম জিনিসপত্রে। তবে আমরাই চায়নার চেয়ে ভালো কিছু করতে পারতুম। #রেজাউলমনোহর
#Rezaulmonohor

Comments

  • No Comments
Log Out?

Are you sure you want to log out?